<<90000000>> দর্শক
<<240>> উদ্যোক্তা 17টি দেশে
<<4135>> টি কৃষিবাস্তুবিদ্যা ভিডিও
<<105>> ভাষা উপলব্ধ

আগাদেজের লাল পেঁয়াজ

Author
Paul Van Mele
Onions from Agadez
Onions from Agadez

যখন কোনো ব্যক্তি নির্দিষ্ট কোনো কৃষিপণ্যের বাজার একচেটিয়া ধরে রাখে অথবা নতুন জাত সৃষ্টির চেষ্টা করে, তখন অন্য ব্যক্তিরা প্রতিযোগিতা করার জন্য দ্রুত ঝাপিয়ে পড়ে।

 

ভায়োলেট ডি গালমি, লাল পেঁয়াজের একটি জাত, এটি মূলত নাইজেরিয়ার গালমি গ্রামে উৎপন্ন হয়। গালমি নাইজেরিয়ান সীমান্তের কাছাকাছি নিয়ামে থেকে প্রায় ৫০০ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থিত। সেই গ্রামের ছোট্ট একটি জনগোষ্ঠী একশো বছরেরও বেশি সময় ধরে এই পেঁয়াজের চাষ করছে। বড়ো পুরু ঘন মিলিত কোষ (বাল্ব) এবং তীব্র গন্ধযুক্ত স্বাদ, হাউসা জনগোষ্ঠীর ঘরোয়া নেটওয়ার্ক এই পেঁয়াজকে পশ্চিম আফ্রিকাজুড়ে জনপ্রিয় করে তুলেছে। প্রকৃতপক্ষে, ইউরেনিয়ামের পরে পেঁয়াজ নাইজারের দ্বিতীয় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ রপ্তানিপণ্য। ওই অঞ্চলে পেঁয়াজের সবচেয়ে বড়ো রপ্তানিকারক দেশ হলো নাইজার।   

 

গত শতকের নয়ের দশকে কোম্পানিগুলো যখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ভারত এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াজুড়ে এই জাতের মোড়কযুক্ত বীজ বিক্রি করে, তখন ফরাসি বীজ কোম্পানি টেকনিসেমের সহযোগী সংস্থা, সেনেগালের একটি বেসরকারি বীজ কোম্পানি, ট্রপিকাসেম, নতুন করে ভায়োলেট ডি গালমি পেঁয়াজের প্রজনন করে এবং পশ্চিম আফ্রিকার নয়টি দেশে একচেটিয়াভাবে বাজারজাত করে। নাইজারের কৃষকেরা যখন জানতে পেরেছিল যে, একটি কোম্পানি তাদের পেঁয়াজের একচেটিয়া অধিকার দাবি করছে, তখন তারা বেশ ক্ষুব্ধ হয়েছিল এবং তাদের সরকারকে এই বায়ো পাইরেসির ক্ষেত্রে তাদের পক্ষে কাজ করতে অনুরোধ করেছিল। 

 

কিন্তু পেঁয়াজের বীজের একচোটয়া বাজার চলতেই থাকলো। 

 

যখন পশ্চিম আফ্রিকাজুড়ে হাজার হাজার কৃষক শুষ্ক মৌসুমে পেঁয়াজের এই জাতটির চাষ করে, তখন পেঁয়াজে বাজার সয়লাব হয়ে যায়, মূল্য কমে যায়, বর্ষাকালে ভায়োলেট ডি গালমি জাত রোগের ঝুঁকিতে পড়ে। এর ফলে পেঁয়াজের সরবরাহ কমে যায় এবং পেঁয়াজ একটি মূল্যবান পণ্যে পরিণত হয়। 

 

যদিয়ো ভায়োলেট ডি গালমি পেঁয়াজ বর্ষাকালে খারাপ অবস্থায় থাকে, কিন্তু নাইজারে এমন একটি স্থান রয়েছে যেখানে তারা পেঁয়াজের মান উন্নত করেছে, সেই স্থানটি মরুভূমির প্রবেশদ্বার হিসেবে পরিচিত আগাদেজ উপত্যকা, এটি গালমি থেকে প্রায় ৫০০ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত। বর্ষাকালে পশ্চিম আফ্রিকার লাল পেঁয়াজের বাজার হাউসা জনগণের হাতেই থাকে। খামারের গেট থেকে পেঁয়াজ সংগ্রহ করা থেকে শুরু করে আগাদেজ থেকে হাজার হাজার মাইল দূরে আফ্রিকান শহরগুলোর রাস্তার ফেরিওয়ালা পর্যন্ত এই পেঁয়াজের বাণিজ্য চলে।   

 

শহরে এখন আরও বেশিসংখ্যক মানুষ তাদের রান্নায় পেঁয়াজ দিতে চায়, এমনকি বর্ষাকালেও, বাজারে এখন পেঁয়াজের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। এবং উদ্ভাবন সবসময় অপরিবর্তিত চাহিদাই পছন্দ করে।

 

উত্তর ঘানায় পেঁয়াজের ওপর কৃষক প্রশিক্ষণের ভিডিও নির্মাণ করার সময় আমি কৃষকদের উদ্ভাবনী ক্ষমতা, নতুন জাত উদ্ভাবনের চেষ্টা, রোপণ ক্যালেন্ডার এবং ফসল চাষের চর্চাগুলোর মধ্যে সমন্বয় করে বাজারের স্থান পূরণের জন্য তাদের শস্য চাষ-পদ্ধতি আমাকে আরও একবার মুগ্ধ করেছিল। বাকাউতে আমি যে কৃষকের সাথে কথা বলেছিলাম, তাদের একজন সলিফু হাসতে হাসতে বলেছিলেন, একটি নতুন জাতের পেঁয়াজের বীজ সংগ্রহ করার জন্য তিনি কীভাবে দক্ষিণে ৬০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়েছিলেন। 

 

পেঁয়াজের নতুন জাতের বীজ এখন পশ্চিম আফ্রিকায় প্রবেশ করছে, কৃষকদের উদ্ভাবন এবং উচ্চমূল্যের সবচেয়ে সেরা সদ্ব্যবহার করার দরুন এবং তাদের দক্ষ পরিচালনার ফলে বর্ষাকালে আরও বেশি পেঁয়াজ উৎপন্ন হচ্ছে। এই বাড়তি সরবরাহের ফলে কাটা পেঁয়াজের একচেটিয়া বাণিজ্য ভেঙে যেতে পারে। খাদ্য খুবই মূল্যবান একটি পণ্য। এর বাণিজ্য স্বল্পসংখ্যক কিছু লোকের হাতে থাকতে পারে না।

 

এক্সেস এগ্রিকালচার থেকে সম্পর্কিত ভিডিও

পেঁয়াজ থেকে বেশি উপার্জন

পেঁয়াজ নার্সারি

পেঁয়াজচাষের উপযুক্ত উর্বর জমি তৈরি

পেঁয়াজক্ষেত প্রস্তুতকরণ

পেঁয়াজের রোগ ব্যবস্থাপনা

পেঁয়াজ উত্তলন ও সংরক্ষণ

 

© Copyright Agro-Insight

আপনি কিভাবে সাহায্য করতে পারেন.. আপনার উদার সাহায্য আমাদের ক্ষুদ্র কৃষকদের কৃষি পরামর্শের জন্য তাদের ভাষায় আরও ভালভাবে পৌঁছাতে সক্ষম করবে।.

Latest News

তরুণ পরিবর্তনকারীরা ভিডিও ব্যবহার করে এগ্রোইকোলজিতে বিপ্লব ঘটিয়েছেন

অ্যাকসেস এগ্রিকালচার ২৫-এ এপ্রিল ২০২৪ তাদের নতুন বই “ইয়াং চেঞ্জমেকার”- প্রকাশের ঘোষণা দিতে পেরে দারুণ আনন্দিত। বইটিতে আফ্রিকা ও ভারতের ৪২টি

অ্যাকসেস এগ্রিকালচারের আরবি ভাষার প্ল্যাটফর্মের সূচনা : একটি উত্তেজনাকর মাইলফলক

অ্যাকসেস এগ্রিকালচার আনন্দের সাথে ঘোষণা করছে যে, তারা আরবিভাষীদের জন্য আরবি ভাষার প্ল্যাটফর্ম চালু করেছে। এতে করে বহু আরবিভাষীর কাছে পৌঁছানো যাবে

অ্যাকসেস এগ্রিকালচার-এর নতুন ওয়েবসাইটে স্বাগত

কৃষিবিদ্যা এবং জৈবচাষাবাদের ওপর কৃষক প্রশিক্ষণ ভিডিওর বিশ্বের বৃহত্তম বহুভাষিক লাইবেরি অন্বেষণ করুন ব্রাসেলস, বেলজিয়াম — অ্যাকসেস এগ্রিকালচার তাদের

মিশরে অগ্রগামী কাজের জন্য অ্যাকসেস এগ্রিকালচার প্রশংসিত

সিজিআইআর, একটি বৈশ্বিক কৃষি-গবেষণা নেটওয়ার্ক, এর নির্বাহী ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডক্টর ইসমাহানে ইলাউফি মিশরের প্রত্যন্ত গ্রামীণ অঞ্চলে নারী ও তরুণ শ্রেণিসহ কৃষকদের কাছে পৌঁছানোর জন্য অ্যাকসেস এগ্রিকালচারের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

আমাদের স্পনসরদের ধন্যবাদ