ফোরাম

সবাই যা বলছেন

“.....এটি বিভিন্ন ভাষায় তৈরি করা কৃষিবিষয়ক ভিডিও প্রশিক্ষণের জন্য সবচেয়ে বড়ো ও শ্রেষ্ঠ অনলাইন লাইব্রেরি। এসব ভিডিও থেকে নেওয়া জ্ঞান আমাদের কৃষিতে দারুণ প্রভাব ফেলেছে।”

সিন গ্র্যানভিল-রস, কান্ট্রি ডিরেক্টর, মারসি কর্পস, উগান্ডা

"অ্যাকসেস এগ্রিকালচারের সামগ্রিক কাজ সম্পর্কে পড়ে আমি খুবই আনন্দিত হয়েছি। এ মূল্যবান কাজের জন্য আমি আপনাকে ও আপনার সহকর্মীদের অভিনন্দন জানাই এবং আপনাদের পুন পুন সাফল্য কামনা করি।"

অধ্যাপক এম এস সোয়ামিনাথন, ভারত

“বর্তমান সময়ের চাহিদা অনুযায়ী এ দুর্দান্ত উদ্যোগটি নেওয়ার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ জানাই। এ উদ্যোগ আগামীদিনের পৃথিবীর মানবজাতির জন্য কল্যাণকর হবে বলে আমি বিশ্বাস করি। প্যাসিফিক দীপপুঞ্জের ‘সামোয়া’ থেকে আমি লিখেছি। আমাদের শিক্ষা বিভাগের ‘স্কুলনেট’ প্রকল্পের অংশ হিসেবে ছাত্রদের জন্য ‘হাই স্কুল লার্নিং সেন্টার’-এর সার্ভারে ইন্সটল করার জন্য আমরা এ ধরনের ইলেকট্রনিক রিসোর্স খুঁজছি।”

ন্যাকেনিলি টুইভাভালাগি, স্কুলনেট প্রকল্প, সামোয়া

"অ্যাকসেস এগ্রিকালচারে ওয়েবসাইটে আপনাদের ভিডিওগুলো আমি দেখেছি। আমাদের শিক্ষার্থীদের জন্য, বিশেষ করে কৃষি কলেজগুলোর শেষ বর্ষের শিক্ষার্থীদের জন্য এসব ভিডিও সুপারিশযোগ্য। কীভাবে শিক্ষার্থীদের মননে বিষয়গুলো ঢুকিয়ে দেওয়া যায় তা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উপাধ্যক্ষদের সাথে সভা করা একান্তভাবে কাম্য। আঞ্চলিক ভাষায় জ্ঞান উপস্থাপন ও উন্নয়নের এ অনন্য পদ্ধতিটি অবহিত করার জন্য জাতিসঙ্ঘের বিভিন্ন সংস্থার [এফএও, ইউএনডিপি এবং বিশ্বব্যাংক] সাথেও সম্পর্ক স্থাপিত হওয়া উচিত।"

গোমিনান ওসেনী সাইডু, এফএও, বেনিন

“ধন্যবাদ, আমার অ্যাকাউন্টটি ভেরিফাই করেছি। উন্ননশীল দেশগুলোর কৃষিখাতে টেকসই উন্নয়নের জন্য কাজ করা এ দলটির আমি একজন অংশীদার হতে চাই।”

এ্যালেস রুটো, নাইরোবি বিশ্ববিদ্যালয়, কেনিয়া

“অ্যাকসেস এগ্রিকালচারের ওয়েবসাইটে ‘ফাইটিং স্ট্রিগা’ ভিডিওটির আরবি সংস্করণ আছে জেনে আমরা খুবই আনন্দিত। এ বিষয়ের সাথে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর সাথে কন্টেন্টটি যত বেশি সম্ভব শেয়ার করব।”

খালিদ আইয়ুব, বিজ্ঞান ও যোগাযোগ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, সুদান

“কৃষকদের সাথে মাঠ পর্যায়ের সভাগুলোতে যেসব সমস্যা ও তথ্য নিয়ে আমরা আলোচনা করি, সেগুলোর একটি সচিত্র সমাধান এ ভিডিওগুলোতে পাচ্ছি। যেসব গ্রামবাসী ‘এফএফএস’ কার্যক্রমের সাথে যুক্ত হতে পারেনি তাদের ‘ফাইটিং স্ট্রিগা’ ডিভিডিটি দেখানো দরকার, যাতে তারা ‘স্ট্রিগা’ নিয়ন্ত্রণের পদ্ধতিগুলো দেখতে পারে।”

ইউসৌ অ্যারমা, কৃষক প্রশিক্ষক, তেঁই-ডুকুরানি, মোপটি অঞ্চল, মালি

"আমি ‘জেজ্জা সাসটেইনেবল অরগানিক ফার্ম’-এর মালিক। কাম্পালা থেকে ৩৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত আমার এ নতুন প্রতিষ্ঠানটি দ্বিতীয় বছরে পা রেখেছে। অ্যাকসেস এগ্রি​​​​​​​কালচারের ওয়েবসাইটের ভিডিওগুলো আমাদের কাজের জন্য এবং আশপাশের কমিউনিটির জন্য খুব উপযোগী, বিশেষ করে আপনাদের ‘ড্রিপ ইরিগেশন’-বিষয়ক ভিডিওটি দেখে আমি মুগ্ধ, অনেক কিছু শিখেছি। আপনাদের অন্যান্য ভিডিও থেকেও শেখার আগ্রহ রয়েছে।"

স্যামুয়েল বায়ামুকামা, জেজ্জা সাসটেইনেবল অরগানিক ফার্ম, উগান্ডা

“দীর্ঘ প্রতীক্ষিত ‘স্ট্রিগা-ও মাটির উর্বরতা রক্ষায় সমন্বিত ব্যবস্থাপনা’-বিষয়ক ডিভিডিটি নাইজেরিয়ার সকল স্টেকহোল্ডারের কাছে বিতরণ করা হয়েছে। এসব স্টেকহোল্ডার নাইজেরিয়ার যেসব প্রদেশে ‘সোরঘাম’ একটি গুরুত্বপূর্ণ শস্য এবং একইসাথে স্ট্রিগা ও মাটির উর্বরতা রক্ষা একটি সংকট, সেসব প্রদেশের কৃষক ও কৃষকদলগুলোর কাছে ডিভিডিওটি প্রচার করবেন। কৃষকদল, গ্রামীণ টেলিভিশন সেন্টার, টিভি ও রেডিও স্টেশনসমূহ, গবেষণা প্রতিষ্ঠানসমূহ, এডিপি-সমূহ, সিবিএআরডিপি-র সহযোগী কৃষক ও গ্রামীণ দলসমূহ ‘সোরঘাম ট্রান্সফরমেশন ভ্যালু চেইন’-সহ অন্যান্য আগ্রহী অংশীদারগণের কাছে প্রায় ১০ হাজার ডিভিডি চলে গেছে। এরা এসব ডিভিডি কেবল প্রচারই করবে না, বরং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আরও তথ্য সংগ্রহ করবে এবং গ্রামীণ কৃষকদের মাঝে আলোচনাটি চালিয়ে নিয়ে যাবে।”

ড. হাকিম আজিগবে, আই-সি-আর-আই-এস-এ-টি, কানো, নাইজেরিয়া

"শুরুতে আমরা ধানের বীজতলা তৈরি, চারা রোপণ ও আগাছা ব্যবস্থাপনার কাজ একসাথে শুরু করার উদ্যোগ নিয়েছিলাম। তিন মিনিটের একটা ভিডিওতে সবগুলো বিষয় সংক্ষিপ্ত করে ঢোকানো কঠিন কাজ ছিল যদিও সেগুলো মূল ভিডিওর মতো হয়নি। আরেকদিকে আমরা এসব ভিডিও, তথ্য-উপকরণ হিসেবে ব্যবহার করছি এবং মাটির উর্বরতাবিষয়ক উপকরণ তৈরি করতে ভিডিওগুলো থেকে ‘জেপেগ’ ফরম্যাটে ছবি বের করে আনছি, যাতে সেগুলো ডাটা ব্যাংকে রাখা যায় এবং সে ডাটা ব্যাংকে যাতে ‘কমিউনিটি নলেজ নেটওয়ার্ক– সিকেডাবিøউ’-এর সবাই ঢুকতে পারে। কৃষকদের পুরো ভিডিওটি দেখানোর সুযোগ আমরা পাইনি। তবে ‘গুলু’-র ধান উৎপাদনকারী এলাকাসমূহের কৃষকেরা যাতে ভিডিওগুলো দেখতে পারে, সে জন্য ‘সিকেডাব্লিউ’-এর লিড কমিউনিটি কর্মীদের মাঝে ভিডিওগুলো বিতরণের চেষ্টা করছি।"

এনেট বোগরে, গ্রামীণ ফাউন্ডেশন, উগান্ডা

“ফিল্মটি দেখে আমি খুবই আনন্দিত। কারণ, এর মাধ্যমে আমাদের গ্রামের ধান উৎপাদনকারী কৃষকেরা ফলন বাড়াতে তাদের ধানবীজের ব্যাপারে আগের চেয়ে যতœবান হয়ে উঠবে। প্রকৃত অর্থে ফিল্মটি আমাদের, যারা ধান-চালের ব্যবসা করি, কৃষকদের কাছ থেকে ধান-চাল কিনে আবার বিক্রি করতে সাহস জুগিয়েছে যা আমাদের আনন্দিত করবে।”

আফ্ফৌসাথ, ব্যবসায়ী, ওরোউকায়ো, বেনিন

“কিছু মানুষ ভিডিওটি দ্বিতীয়বার দেখতে চেয়েছিল, আবার কেউ কেউ ভিডিওটি যাতে তাদের সুবিধাজনক সময়ে দেখতে পারে সেজন্য কপি নিতে চেয়েছিল।”

জার্মেই জোসসুংবো, এনজিও, আঁ মন্দ, বেনিন

“অন্যান্য দেশের কৃষকেরা তাদের নিজস্ব পদ্ধতিতে কীভাবে ধানচাষ করছে তা দেখে এখানকার কৃষকেরা খুবই উৎফুল্ল। এশিয়ার কৃষকেরা শত শত বছর ধরে সাধারণ পদ্ধতিতে কীভাবে বীজব্যবস্থাপনা করে তা দেখে তাদের দৃষ্টি খুলে গেছে। সাব-কাউন্টির যেখানেই ভিডিওগুলো দেখানো হয়েছে, সেখানেই একটি করে রিসোর্স সেন্টার আছে, যেগুলোয় টিভি ও ভিডিও ডেক এর ব্যবস্থা আছে।”

রবার্ট আনায়াঙ, এপিইপি, উগান্ডা

“ফ্যাসিলিটেটর-গণ, বীজ নিয়ে তৈরি ভিডিওটি দেখে কৃষকেরা তাদের সমস্যা সমাধানে স্থানীয় সমাধান খোঁজার ব্যাপারে আগ্রহী হবে বলে মনে করেন। প্রচলিত জ্ঞানকে কাজে লাগালে প্রায় বিনাখরচে সমস্যাসমূহের টেকসই সমাধান খুঁজে পাওয়া যায়। তারা এটা বলেনি যে, ভিডিওগুলো থেকে পাওয়া সব জ্ঞানই হুবহু কাজে লাগাবে, বরং প্রয়োজন অনুযায়ী তা প্রয়োগ করবে।”

লুই বিভ্যুই, আইআরএজি, গিনি

“আমার কাছে আপনাদের ভিডিওগুলো সহজবোধ্য মনে হয়েছে। গ্রামীণ কৃষকেরা ভিডিওগুলোর তথ্যসমূহ বুঝতে পারবে, এমনকি যারা সনাতনি কৃষির সাথে যুক্ত তারও।”

লিলি সার, শিক্ষাবিদ ও গবেষক, পাপুয়া নিউ গিনি

ক্যাটাগরিসমূহ

Designed & Built by Adaptive - The Drupal Specialists